ঢাকামঙ্গলবার , ২৫ জানুয়ারি ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

আদিয়ান মার্টের সিইওর বাড়িতে তালা দিলেন গ্রাহকরা

মানবতা ডেস্ক নিউজ
জানুয়ারি ২৫, ২০২২ ১২:৫১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জুবায়ের সিদ্দিকীর বাড়িতে তালা দিয়েছেন দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা অর্ধশতাধিক প্রতারিত গ্রাহক। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে তারা প্রতিষ্ঠানটি ও সিইও’র বাড়িতে তালা দেন। এর আগে বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা প্রতিষ্ঠানটির সামনে মানববন্ধন করেন।

বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন। তিনি বলেন, কয়েকজন গ্রাহক টাকা পাওয়া নিয়ে সিইও’র বাড়িতে গিয়ে অবস্থান করছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

গ্রাহকদের টাকা আত্মসাতের মামলায় গত বছরের ২৯ অক্টোবর রাত ১২টার দিকে খুলনা ও চুয়াডাঙ্গা থেকে প্রতিষ্ঠানটির সিইও জুবায়ের সিদ্দিকী মানিক, মহা-ব্যবস্থাপক মাহমুদ সিদ্দিকী রতন, উপদেষ্টা আবু বক্কর সিদ্দিকী ও ম্যানেজার মিনারুল ইসলামকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন- (র‍্যাব) ৬। তবে কয়েকদিন আগে সিইও বাদে সবাই জামিনে বের হয়ে আসে।

গ্রাহকরা বলেন, আমরা মোটরসাইকেল, ফ্রিজসহ বিভিন্ন পণ্য কেনার জন্য প্রায় ১ কোটি টাকা দিয়েছি। কয়েক দফায় টাকার জন্য তাদের সঙ্গে বসেও সমাধান হয়নি। সিইও এর বাবা প্রতিষ্ঠানটির উপদেষ্টা আবু বক্কর সিদ্দিকী টাকা দেওয়ার আশ্বাস দিলেও বারবার ঘুরিয়ে যাচ্ছে। আমরা পথে বসে গেছি।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার মোমিনপুর ইউনিয়নের বোয়ালমারি গ্রামের মজিবুল হক নামে এক গ্রাহক বলেন, গত ১ বছর আগে মোটরসাইকেল কেনার জন্য ৩ লাখ ২৬ হাজার টাকা পেমেন্ট করি। এখনো টাকা পাইনি। মামলা না করলেও অন্যরা মামলা করে। এতে সিইওসহ চারজন গ্রেফতার হয়। তারা কয়েকদিন আগে জেল থেকে জামিনে বের হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, জেল থেকে বের হওয়ার পর আমরা তাদের সঙ্গে টাকার কথা বললে কোনো সাড়া দেয়নি।

প্রান্ত নামে এক গ্রাহক বলেন, আমি গত বছরের মে মাসে ফ্রিজ-মোটরসাইকেলসহ ৬ লাখ টাকার পণ্য অর্ডার করি। ওই মাসেই টাকা পেমেন্ট করি। এরপর থেকে কোন পণ্য দেয়নি। আবার টাকার কথা বললে, দেব-দিচ্ছি বলে ঘোরাচ্ছে। আমরা বেকার যুবক। ধার-দেনা করে টাকা দিয়েছি। আমরা এখন পথে বসেছি।

তিনি আরও বলেন, দুদিন আগে জামিন পাওয়া প্রতিষ্ঠানটির মহা-ব্যবস্থাপক মাহমুদ সিদ্দিকী রতন, উপদেষ্টা আবু বক্কর সিদ্দিকী ও ম্যানেজার মিনারুলকে আমরা কয়েকজন টাকার জন্য বলি। তারা আমাদেরকে ১ মাসের সময়ের কথা বললেও কোনো উল্লেখযোগ্য গ্যারান্টি দেয়নি। এ জন্য আমরা আজ আদিয়ান মার্ট এর প্রতিষ্ঠান এবং সিইওর বাড়ি তালা মেরে দিয়েছি। আমরা যেকোন মূল্যে টাকা চাই।

খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) সুখেন্দু বসু ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেন। তাদের কাছে বিস্তারিত শোনেন এবং আইন নিজেদের হাতে তুলে না নেওয়ার জন্য আহ্বান করেন।

প্রসঙ্গত, আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্ট চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরে মোমিনপুরে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে বড় পরিসরে কার্যালয় খুলে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। প্রথম থেকেই প্রতিষ্ঠানটি স্বল্পমূল্যে বিভিন্ন অফারের মাধ্যমে জনসাধারণকে আকৃষ্ট করতে থাকে। এরপরই সারাদেশ থেকে আসতে থাকে কোটি কোটি টাকার অর্ডার। এক পর্যায়ে পণ্য ডেলিভারি দিতে বাকি রাখে প্রতিষ্ঠানটি। এমনকি বিগত কয়েক মাস ধরে তারা তাদের প্রতিষ্ঠানের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দিলে দিশেহারা হয়ে পড়ে ডেলিভারি না পাওয়া গ্রাহকেরা।

পরে বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ২৯ অক্টোবর বিকেল থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্ট লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‍্যাব-৬ এর একটি দল। পরদিন সকালে গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ মামলায় খুলনা ও চুয়াডাঙ্গা থেকে প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জুবায়ের সিদ্দিকীসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।