ঢাকামঙ্গলবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০২১
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

আশুলিয়ায় পরকীয়ার জেরে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যা, হত্যাকারী গ্রেফতার

সাভার (ঢাকা ) প্রতিনিধি:
ডিসেম্বর ১৪, ২০২১ ১০:০৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 আশুলিয়ায় নরসিংহপুরে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার রহস্য উদঘাটন এবং হত্যার সঙ্গে জড়িত হাসান হাওলাদার (২২) কে রাঙ্গামাটির লংগদু থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১ এর একটি আভিযানিক দল।
এরআগে, মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) ভোর রাতে রাঙ্গামাটি জেলার লংগদু থানার ভাই-বোন ছড়া বাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা তাকে গ্রেফতার করা হয়।
মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (অপস্ অফিসার) সহকারী পুলিশ সুপার নোমান আহমদ।
গ্রেফতার হাসান হাওলাদার (২২) বরগুনা জেলার পাথরঘাটা থানার রায়হানপুর গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে।
র‌্যাব জানায়, গত ৭ ডিসেম্বর রাতে আশুলিয়ার নরসিংহপুর অন্ধ কলোনী মাধন চন্দ্র সরকারের ভাড়া বাড়ির একটি কক্ষে আসামী হাসান হাওলাদার (২২) নিহত মারুফা বেগম (২৮) কে গলা টিপে হত্যা পর লাশ খাটের উপর ফেলে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় নিহতের চাচা হেমায়েত হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই হত্যাকান্ডের ঘটনা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে এবং বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে গুরুত্বের সাথে প্রচারিত হয়। এর প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১ হত্যাকান্ডের রহস্য উদ্ঘাটন ও হত্যাকারীকে খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে দ্রুততার সাথে ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে।
সেই ধারাবাহিকতায় ১৪ ডিসেম্বর ভোর রাতে র‌্যাব-১ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাঙ্গামাটি জেলার লংগদু থানার ভাই-বোন ছড়া বাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে হত্যাকান্ডের মূল আসামী হাসান হাওলাদার (২২) কে গ্রেফতার করে। এ সময় তার নিকট হতে ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী হত্যার কথা স্বীকার করেছে।
আসামীর বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, নিহত মারুফা বেগম পেশায় একজন গার্মেন্টস কর্মী এবং তার স্বামী কুয়েত প্রবাসী। সে আশুলিয়ার নরসিংহপুরে ভাড়া বাসায় তার ছেলে ফাহিম (৬) কে নিয়ে বসবাস করত। হত্যাকারী সম্পর্কে নিহতের মামাতো দেবর হিসেবে পূর্ব পরিচিত। পরিচয়ের সূত্রে হাসান প্রায় তার বাসায় আসা যাওয়া করত এবং তাদের মধ্যে গত এক বছর ধরে শারিরীক সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরবর্তীতে গত ৭ ডিসেম্বর রাতে হাসান নিহতের বাসায় আসলে মারুফা বেগম তাকে বিবাহ করতে বলায় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। মধ্যরাতে নিহতের ছেলে ঘুমিয়ে পড়লে হাসান তাকে গলা টিপে হত্যা করে লাশ খাটের উপর ফেলে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকেই হাসান রাঙ্গামাটিতে আত্মগোপনে অবস্থান করতে থাকে।
র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (অপস্ অফিসার) সহকারী পুলিশ সুপার নোমান আহমদ জানান, গ্রেফতার আসামীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।