ঢাকাশুক্রবার , ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

ইমরুল-লিটনের ঝড়ে চট্টগ্রামকে হারিয়ে শীর্ষে কুমিল্লা

খেলাধুলা ডেস্ক:
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২২ ৩:০৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মোস্তাফিজুর রহমানের পাঁচ উইকেটে ১৩৮ রানে আটকে যাওয়া চট্টগ্রামের বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে ইমরুল কায়েস ও লিটন দাসের ঝড়োগতির ব্যাটিংয়ে ৯ উইকেটের জয় পেয়েছে কুমিল্লা। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ফিরে এলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ৫ ম্যাচ শেষে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট কুমিল্লার। ফরচুন বরিশালেরও ৬ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট থাকলেও রান রেটের ব্যবধানে পিছিয়ে থাকতে হলো তাদের। রান রেটের ব্যবধানে শীর্ষে উঠে গেলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। গতকাল বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নামে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। বৃষ্টি বাগড়ার কারণে ২০ ওভার থেকে খেলা নামিয়ে আনা হয় ১৮ ওভারে। কুমিল্লার সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৪৪ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম জুটিতেই বাজিমাত করে ইমরুল ও লিটন।

দলকে জয়ের খুব কাছে গিয়ে লিটন বিদায় নিলেও শক্ত হাতে তা সম্পন্ন করেন অধিনায়ক ইমরুল। লিটন দাস ৩৭ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলেন। আর ইমরুল ৬২ বলে ৮১ রান করে অপরাজিত থাকেন। আর ফাফ দু’প্লেসিকে কোনো বলই খেলতে হয়নি। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু করতে পারেনি চট্টগ্রাম। ওপেনার চ্যাডউইক ওয়ালটন রানের খাতা খোলার আগেই নাহিদুল ইসলামের শিকার হন। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দলকে টেনে তোলেন উইল জ্যাকস আর আফিফ হোসেন। ৪০ বলে ৬২ রান যোগ করেন দুজন। আফিফ ২১ বলে ২৭ রান করে তানভীর ইসলামের দারুণ এক ডেলিভারিতে বোল্ড হলে ভাঙে তাদের এই পার্টনারশিপ। তৃতীয় উইকেটে শামীম হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাট চালিয়ে খেলতে থাকেন জ্যাকস। চট্টগ্রাম ১২.৫ ওভারে ১০৭ রান তুলতেই মিরপুরের আকাশ ভেঙে বৃষ্টি নামে। ফলে বন্ধ হয়ে যায় খেলা। বৃষ্টির বাগড়ার কারণে চট্টগ্রামের ইনিংস কমে দাঁড়ায় ১৮ ওভারে। পরে মোস্তাফিজুর রহমান বল হাতে নিয়েই ইনিংসের ১৪তম ওভারে ফেরান শামীম-জ্যাকস দুজনকেই। শামীম আউট হন ২২ বলে ২৬ রান করে। ফর্মের তুঙ্গে থাকা জ্যাকস করেন ৩৭ বলে ৫৭ রান। নিজের পরের ওভারে ফিরেই মোস্তাফিজুর শিকার করেন নাঈম ইসলাম ও বেনি হাওয়েলকে। ৩ রানে থাকা নাঈমকে ফেরান দুর্দান্ত এক ফিরতি ক্যাচ নিয়ে। হাওয়েলের ব্যাট থেকেও আসে সমান ৩ রান। মোস্তাফিজ নিজের শেষ ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজকে শিকার করে প্রথমবারের মতো বিপিএলে পাঁচ উইকেটের স্বাদ পান। এতে নির্ধারিত ১৮ ওভারে চট্টগ্রাম সংগ্রহ করে ১৩৮ রান। ডিএলএস মেথডে কুমিল্লার সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৮ ওভারে ১৪৪ রান। ইমরুল-লিটনের কল্যাণে যা দলটা পেরিয়ে যায় অনায়াসেই। ১৬ ওভার ৩ বলে এক উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কুমিল্লা।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।