ঢাকাশনিবার , ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

এবার সবজির দামও ঊর্ধ্বমুখী

মানবতা ডেস্ক নিউজ
ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২২ ৪:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

গেলো সপ্তাহে বোতলজাত ভোজ্যতেল লিটারপ্রতি ৮ টাকা বাড়িয়ে নতুন মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। এক মাস ধরে বাড়তি সরু ও মাঝারি চালের বাজারও। শীত মৌসুমের সবজি বাজারে থাকায় জানুয়ারি মাসের শেষ দিকে কিছুটা কমেছিলো দাম। কিন্তু সপ্তাহ ঘুরতেই আবার বাড়তে শুরু করছে সবজির দাম। বাজারে বর্তমানে আলু ছাড়া প্রায় সব ধরণের সবজির দাম ঊর্ধ্বমুখী।

শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর কাওরান বাজার, কাঁঠালবাগান বাজার ঘুরে এই চিত্র পাওয়া গেছে। বাজার ঘুরে দেখা গেছে, নিত্যপণ্যের বাজারে সবকিছুর দাম ঊর্ধ্বমুখী থাকায় স্বস্তিতে নেই ক্রেতারা। ভোক্তাদের দাবি, বাজার মনিটরিং না থাকায় ইচ্ছেমতো দাম বৃদ্ধি করছে ব্যবসায়ীরা।

রাজধানীর সবজির বাজারে ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহে ৩৫-৪০ টাকায় বিক্রি হওয়া শসা এখন ৬০ থেকে ৭০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। টমেটোর দামও ১০ টাকা বেড়ে এখন ৪০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ফুলকপি প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, বাধাকপি প্রতি পিস ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, শিমের কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা এবং কেজিপ্রতি ৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে বেগুন। সব ধরণের সবজির দাম বাড়তির দিকে থাকলেও বাজারে আলুর দাম স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে। আলু কেজিপ্রতি ১৮ থেকে ২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

রাজধানীর নিউ ইস্কাটন এলাকার বাসিন্দা নুর হোসাইন। বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করা নুর বিবার্তাকে বলেন, গত সপ্তাহেও ৩০-৪০ টাকায় বেগুন, শসা নিয়েছি। এক সপ্তাহে দাম ২০ টাকা বেড়ে গেছে। আগে নিয়মিত শসা খেতাম, এখন বাদ দিয়ে দিয়েছি। তিনি বলেন, শীতের মৌসুমে ফুলকপি, বাধাকপি ও টমেটো এসবের দাম কম থাকার কথা, কিন্তু ‍কমছে না। সবকিছুর দাম একসাথে বাড়ছে।

সবজির দাম বাড়ার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে কাওরান বাজার এলাকার সবজি ব্যবসায়ী শিবলী আহমদ বিবার্তাকে বলেন, আমরা আড়তদারদের কাছ থেকে কিনে খুচরা বিক্রি করি। আমরাও বেশি দাম কিনছি। দু’এক টাকা তো আমাদেরও লাভ করতে হয়।

বর্তমানে বাজারে দেশি পেঁয়াজের কেজি ৩০-৩৫ টাকা। তবে আমদানি করা পেঁয়াজের দাম ৪৫-৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে। বাজারে মসুর ডালের (বড় দানা) দাম ৯৫ থেকে ১০০ টাকা ও ছোট দানা ৫ টাকা বেড়ে ১২০ থেকে ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ডিমের দাম হালিতে দুই টাকা বেড়ে ৩৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর চিনি বিক্রি হচ্ছে ৭৫টাকা কেজি।

রাষ্ট্রায়ত্ত বিপণন প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ট্রেডিং করপোরেশনের (টিসিবি) তথ্যমতে, বাজারে গেলো এক মাসে সরু ও মাঝারি চাল ২ থেকে ৩ টাকা বেড়েছে। এক লিটারের সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৬৮ টাকায়। আর ৫ লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৭৩০ থেকে ৭৮০ টাকায়।

রাজধানীর বাজারগুলোতে মিনিকেট চাল বিক্রি হচ্ছে ৬২ থেকে ৬৪ টাকা কেজি দরে। এছাড়া জিরাশাইল ৫২ থেকে ৫৪ টাকা, নাজিরশাইল ৬৫ থেকে ৭০ টাকা, আঠাশ ৪৮ থেকে ৫০ টাকা, গুটি-স্বর্ণা ৪৫ থেকে ৪৮ টাকা, কাটারিভোগ ৮৫ টাকা, বাসমতী ৬৪ টাকা এবং চিনিগুড়া চাল ৯০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। রাজধানীর খুচরা বাজারে এসব চাল কেজিপ্রতি ২ থেকে ৩ টাকা বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে মুরগির ঘুরে বাজারে দেখা গেছে, গেলো সপ্তাহের মতো ব্রয়লার মুরগি কেজি প্রতি ৫ টাকা বেড়ে ১৬৫ থেকে ১৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া পাকিস্তানি কক বা সোনালি মুরগির কেজি ২৫০ থেকে ২৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর লাল লেয়ার মুরগির কেজি ২৪০-২৫০ টাকা। গরুর মাংস কেজিপ্রতি ৬০০ টাকা ও ছাগলের মাংস ৮০০-৮৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে তেলাপিয়া মাছের কেজি ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা, পাঙাশ ১৩০ টাকা, রুই মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ৩৫০ টাকা, কাতল মাছ ৩০০ টাকা, শোল মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৫৫০ টাকা। এছাড়া ইলিশ কেজিপ্রতি ৬০০ থেকে ১২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।