সোমবার, আগস্ট ২, ২০২১
Homeদেশজুড়েখুলনা বিভাগকার্পাসডাঙ্গা বাজারে অবৈধভাবে দোকানঘর নির্মাণঃ উচ্ছেদ অভিযানে তিন দিনের আল্টিমেটাম

কার্পাসডাঙ্গা বাজারে অবৈধভাবে দোকানঘর নির্মাণঃ উচ্ছেদ অভিযানে তিন দিনের আল্টিমেটাম

দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা বাজারে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করেই চলেছে অবৈধভাবে দোকানঘর নির্মাণ। দোকান ঘর উচ্ছেদে তিন দিনের আল্টিমেটাম ভ্রাম্যমান আদালতের ১৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

বুধবার বেলা ৩ টা সময় অভিযান পরিচালনা করেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সুদীপ্ত কুমার সিংহ। দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা ব্রীজ মোড় বাজারে অবস্থিত সরকারি ১ নং খতিয়ানের খাস জমিতে অবৈধভাবে দোকান নির্মাণ এর দায়ে ফার্নিচারের দোকান মালিক জিয়া শেখকে ৫ হাজার টাকা, ফার্মেসি মালিক ইব্রাহিম কে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালতর। এছাড়াও দুই দোকানদার খবর পেয়ে দোকান বন্ধ করে দ্রুত সটকে পড়ে ।

কার্পাসডাঙ্গা সাইকেল বাজারে অবস্থিত আরো অসংখ্য দোকান আছে পাকা আধাপাকা যেগুলো বন্ধ থাকার কারণে পদক্ষেপ নিতে পারেনি ভ্রাম্যমাণ আদালত। এলাকাবাসি বলেন প্রায়ই স্থানীয় পত্র পত্রিকায় দেখি এই কার্পাসডাঙ্গা বাজার কে ঘিরে সরকারি খাস জমিতে অসংখ্য অবৈধ পাকা দোকানঘর নির্মাণ করতে এবং মাঝেমধ্যে প্রশাসন অভিযান চালালেও এসব ভূমিদস্যুরা প্রভাবশালী হয়ওয়া এলাকায়বাসি বলছে চতুরতার সাথে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে দোকান ঘর নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে, দেখা য়ায় স্থানীয় প্রশাসনকে অভিযান চালাতে এখন পর্যন্ত সুনির্দিষ্টভাবে অবৈধ দখলদারদের কে দূর করতে সক্ষম হয়নি উপজেলা প্রশাসন এমনই বক্তব্য স্থানীয় ব্যবসায়ীদের।
স্থানীয় ব্যবসায়ীরা আরো জানায় বাজারের জন্য সরকারি যে জায়গা আছে, সেখানে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যবসায়ীরা এক এক জনে পাঁচ থেকে দশটা করে পাকা দোকান করে বিভিন্ন ব্যাবসায়ীর কাছে বিক্রি করেছে।

স্থানীয় সচেতন মহলের দাবি, প্রশাসন এমন অভিযান অব্যাহত রাখলে হয়তো একসময় এসকল ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা পাবে ঐতিহ্যবাহী কার্পাসডাঙ্গা বাজার। আমাদের প্রত্যাশা জেলা প্রশাসন থেকে শুরু করে উপজেলা প্রশাসন নিশ্চয়ই এটার সঠিক তদন্ত করে অবৈধ ভাবে সরকারি জমি দখল করে যারা দোকান নির্মাণ করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিম ম্যাজিস্ট্রেট সুদীপ্ত কুমার সিংহ জানায়, জেলা প্রশাসনের অনুমতি ব্যতিত যে কয়েকটি দোকান অবৈধভাবে স্থাপন করা হয়েছে -সেগুলো আগামী ৩ দিনের মধ্যে সরিয়ে না নিলে পরবর্তীতে ১৯৭০ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ কর হবে বিধি (৭)শাস্তি -২ বছরের কারাদণ্ড বিধি (৮)বাজেয়াপ্ত -সমুদয় দোকান ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা যেতে পারে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments