1. manobatatelevision@gmail.com : Salekin Mia : Salekin Mia Sagor
  2. chuadangatimes24@gmail.com : Manobata Television : Manobata Television
চলতি বছর সংক্রমণের তীব্রতা অনেক বেশি » Manobata Television: Bangla online Tv
ঢাকা আজ-মঙ্গলবার,১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,বিকাল ৪:৫২,গ্রীষ্মকাল
সর্বশেষ প্রকাশিত
বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামসুল বারী আর নেই তিন মাসের মধ্যে পুরো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দুর্নীতিমুক্ত করার চ্যালেঞ্জ করলেন গোলাম রাব্বানী ইসরাইলকে ৭৪ কোটি ডলারের নিখুঁত অস্ত্র দিচ্ছে আমেরিকা তাপমাত্রা বাড়বে, ঝড়-বৃষ্টিও হবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংবাদ সম্মেলন বয়কট করেছেন সাংবাদিকরা স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও সচিবের পদত্যাগ দাবি মির্জা ফখরুলের ফিলিস্তিন ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা জানাল ইরান রোজিনা কারাগারে, জামিন শুনানি বৃহস্পতিবার সাংবাদিক রোজিনার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ মন্ত্রণালয়ের রোজিনার গলা চেপে ধরা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা মামলার প্রস্তুতি ‘স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতিগ্রস্ত মানুষগুলোই আমাদের মৃত্যু নিশ্চিত করছে’ সাংবাদিক রোজিনার রিমান্ড আবেদন খারিজ ফি’লি’স্তিনিদের সম’র্থনে দলে দলে ই’স’রায়েল ঢুকছে লেবানন, জর্ডান ও সিরিয়ার মানুষ ধর্ষণে জন্ম সন্তানকে হত্যাচেষ্টা, ভয়ে বাড়িছাড়া ধর্ষিতা এবারের মিস ইউনিভার্স মেক্সিকান সুন্দরী পাল্টা মামলার ঘোষণা রোজিনার পরিবারের অমানুষ’ সিনেমার টাইটেল গান থেকে বাদ পড়লেন নোবেল সাবেক স্বামীর হাতে বেদম প্রহারে আহত বর্তমান স্বামী ও স্ত্রী দামুড়হুদায় সরকারী গৃহ নির্মাণাধীন ঘর পরিদর্শনে করলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার আব্দুর রশিদ হামাসের বিজয়ের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে
চলতি বছর সংক্রমণের তীব্রতা অনেক বেশি

চলতি বছর সংক্রমণের তীব্রতা অনেক বেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১, ০৯:৫৬: পূর্বাহ্ণ
  • ৬৬ বার দেখা
Manobata Tv image 157199 1618801496bdjournal

করোনায় দেশে টানা তিন দিন ধরে এক শর বেশি করে মানুষ মারা যাচ্ছে। গতকাল রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১০২ জনের, যা এখন পর্যন্ত দেশে দৈনিক হিসাবে সর্বোচ্চ মৃত্যু। আর নতুন শনাক্ত হয়েছে তিন হাজার ৬৯৮ জন। এর আগে দুই দিন ১০১ জন করে মানুষ মারা যায়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
এদিকে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) থেকে গত শনিবার রাতে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনের তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, করোনাভাইরাস মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশে সংক্রমণের তীব্রতা গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি। ফলে বয়স্ক বা আগে থেকে বিভিন্ন রোগে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা মানুষ এই তীব্রতার ধকল সইতে পারছে না বলেই মৃত্যু বেড়ে গেছে।
যদিও সংক্রমণের তীব্রতা ও দ্রুত মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নতুন কোনো তথ্য দিতে পারছে না আইইডিসিআর। শুধু আগের মতোই পর্যবেক্ষণ তুলে ধরে আইইডিসিআরের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যাদের আগে থেকে নানা রোগের জটিলতা রয়েছে এবং যাদের বয়স তুলনামূলক বেশি, তাদের মধ্যে যারা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে তাদের মধ্য থেকেই মৃত্যু হচ্ছে বেশি। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি রোগী মারা যাচ্ছে তীব্র শ্বাসকষ্টে। এ ছাড়া ডায়াবেটিস, হৃদরোগ ও উচ্চ রক্তচাপও তাদের মৃত্যু ত্বরান্বিত করছে।

আফ্রিকান বা অন্য কোনো ভেরিয়েন্টের কারণে এবার সংক্রমণের তীব্রতা ও মৃত্যু দ্রুত ঘটছে কি না, এ বিষয়ে আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. তাহমীনা শিরীন বলেন, ‘আমাদের কাছে এ রকম কোনো নিশ্চিত তথ্য এখনো নেই। এ জন্য যে মাপের গবেষণা প্রযুক্তি দরকার, তা আমাদের এখানে নেই। আর এটি বের করা অনেকটাই সময়সাপেক্ষ। ফলে উপযুক্ত মাত্রায় গবেষণার ফলাফল ছাড়া কেউ যদি বলেন কোনো বিশেষ ভেরিয়েন্টের প্রভাবে সংক্রমণের তীব্রতা বেড়েছে বা দ্রুত মৃত্যু ঘটছে, সেটা সঠিক হবে না বা হচ্ছে না।’

প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত মার্চ মাসে (এক মাসে) যেখানে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬৩৮ জনের, সেখানে চলতি এপ্রিল মাসে মাত্র ১৫ দিনে মারা গেছে ৯৪১ জন। অর্থাৎ আগের মাসের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধির হার ৩২.২ শতাংশ। অন্যদিকে গত বছর দেশে ২৪ ঘণ্টার হিসাবে যেখানে সর্বোচ্চ মৃত্যু উঠেছিল ৬৪ জনে, সেখানে এবার এই এপ্রিলের কয়েক দিনই দৈনিক মৃত্যু গত বছরের ওই সর্বোচ্চ দৈনিক মৃত্যুর চেয়ে ৫০ শতাংশেরও বেশি হচ্ছে। এ ছাড়া এবার যারা মারা যাচ্ছে তাদের তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, মৃতদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫২ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পাঁচ দিনের মধ্যেই হাসপাতালে এসেছিল, আবার সর্বোচ্চ ৪৮ শতাংশ হাসপাতালে আসার পাঁচ দিনের কম সময়ের মধ্যে মারা গেছে। তবে সরাসরি উপসর্গ দেখা দেওয়ার পাঁচ দিনের মধ্যে মৃত্যুর হার মাত্র ১০ শতাংশ। এ ক্ষেত্রে উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর থেকে সর্বোচ্চ ২৮ শতাংশের মৃত্যু ঘটছে পাঁচ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে এবং ২৬ শতাংশের মৃত্যু ঘটছে ২০ দিন পরে।

আইইডিসিআরের ওই প্রতিবেদনে দেখা যায়, মৃতদের মধ্যে পাঁচ থেকে ১০ দিনের মধ্যে হাসপাতালে এসেছিল ২৬ শতাংশ, ১১ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে এসেছিল ১২ শতাংশ, ১৬ থেকে ২০ দিনের মধ্যে ২ শতাংশ এবং ২০ দিনের পরে এসেছিল ৮ শতাংশ। অন্যদিকে হাসপাতালে আসার পর ৩১ শতাংশের মৃত্যু হয়েছে পাঁচ থেকে ১০ দিনের মধ্যে, ১২ শতাংশের মৃত্যু হয়েছে ১১ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে, ২ শতাংশের মৃত্যু হয়েছে ১৬ থেকে ২০ দিনের মধ্যে এবং ৬ শতাংশের মৃত্যু হয়েছে ২০ দিনের পরে।

ওই প্রতিবেদনের আরেক অংশে দেখানো হয়েছে, এ বছর ২৮ জানুয়ারি থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত যারা আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৪৪ শতাংশই হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছে, বাকিদের মধ্যে ৩৩ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে, ১৭ শতাংশ বাড়িতে এবং ৬ শতাংশ অন্যান্যভাবে চিকিৎসা নিয়েছে। এ ছাড়া এবার মৃতদের মধ্যে তুলনামূলকভাবে নারীর সংখ্যা বেড়েছে। বিশেষ করে গত বছর জুলাই মসে যখন সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল দেশে, তখন ৮২ শতাংশ ছিল পুরুষ এবং বাকি ১৮ শতাংশ ছিল নারী। এবার এপ্রিলে এ পর্যন্ত যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে ৭০ শতাংশ পুরুষ এবং ৩০ শতাংশ নারী। অর্থাৎ গত বছরের তুলনায় নারীর মৃত্যু এবার ১২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুসারে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টার হিসাবে মৃত্যু হয়েছে ১০২ জনের, নতুন শনাক্ত হয়েছে তিন হাজার ৬৯৮ জন এবং সুস্থ হয়েছে ছয় হাজার ১২১ জন। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত সাত লাখ ১৮ হাজার ৯৫০ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ১০ হাজার ৩৮৫ জন এবং সুস্থ হয়েছে ছয় লাখ ১৪ হাজার ৯৩৬ জন। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুহার ১৯ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৫৯ জন এবং নারী ৪৩ জন। বয়স বিবেচনায় ৩১ থেকে ৪০ বছরের দুজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ১৪ জন, ৫১ থেকে ৫০ বছরের ২৩ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ৬৩ জন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৬৮ জন, চট্টগ্রামের ২২ জন, রাজশাহীর তিনজন, খুলনার একজন, বরিশাল ও ময়মনসিংহের চারজন করে রয়েছে।

শেয়ার করুন

[প্রিয় পাঠক, আপনিও মানবতা টেলিভিশনের অনলাইনে অংশ হয়ে উঠুন।আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানান ঘটনার খবর জানাতে পারেন এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-manobatatelevision@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।[বিদ্র: পরিচয় গোপন রাখার মত বিষয় হলে তা গোপন রাখা হবে]]
এই বিভাগের আরো

বিজ্ঞাপন

সেহরী ও ইফতারের সময়

সেহরির শেষ সময়ঃ ৩:৫৬ পূর্বাহ্ণ
ইফতারের শেষ সময়ঃ ৬:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৪:০১ পূর্বাহ্ণ
  • দুপুর ১২:০৪ অপরাহ্ণ
  • বিকাল ৪:৩৮ অপরাহ্ণ
  • সন্ধ্যা ৬:৪৩ অপরাহ্ণ
  • রাত ৮:০৬ অপরাহ্ণ
  • ভোর ৫:২২ পূর্বাহ্ণ

বিজ্ঞাপন

পুরানো সংবাদ পড়ুন

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
31      
1234567
891011121314
15161718192021
293031    
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       

বিজ্ঞাপন

Advertaisement

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

Advertaisement

বিজ্ঞাপন

করোনা লাইভ আপডেট

বিজ্ঞাপন

আইপিএল ক্রিকেট লাইভ স্কোর

বিজ্ঞাপন

চুয়াডাঙ্গার আবহাওয়ার সংবাদ
চুয়াডাঙ্গার আবহাওয়া সংবাদ
২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত |গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
সাইট ডিজাইনার সালিকিন মিয়া সাগর-01867010788
আরো সংবাদ পড়ুন
প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে যেসব নথি সরানোর অভিযোগ…