ঢাকাশুক্রবার , ১৭ ডিসেম্বর ২০২১
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

ঝিনাইদহে নির্বাচনি সহিংস ঘটনায় হামলা ভাংচুর, মেম্বর প্রার্থীর মৃত্যু, পুলিশের এসআই আহত, আটক ২

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ডিসেম্বর ১৭, ২০২১ ৮:১০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

৪র্থ ধাপের ইউনয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় নৌকা ও সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সর্মথকদের মধ্যে সংঘর্ষ নির্বাচনি অফিসে হামলা মটর সাইকেল ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। আহত হয়েছে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন। এ সময় নৌকা প্রতীকের সর্র্মথকদের হামলায় গুরুতর ভাবে আহত হয়েছেন পুলিশের এক এস,আই। জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। গতকাল বুধবার রাত ৭টা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ফুরসুন্দি ইউনিয়নের টিকারি বাজার ও ফুরসুন্দি এলাকায় কয়েক ধাপে এ ঘটনা ঘটেছে। এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এখন পর্যন্ত দুইজনকে আটক করা হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক পুলিশ। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার সহ পদস্থরা। পুলিশ জানায় গতকাল রাত ৭টার দিকে নৌকা ও সতন্ত্র প্রার্থী সর্মকদের মধ্যে ইউনিয়নের ফুরসুন্দি এলাকায় প্রথম সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এরপর কিছু সময় পরে টিকারি বাজার নামক স্থানে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অফিসে হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় কয়েকটি মটরসাইকেল ভাংচুর করে। এ ঘটনার জের কাটতে না কাটতেই সকালে ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বর প্রার্থী মাহমুদুল হক পলাশের মৃত্যু হয়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে নৌকার প্রার্থীর সর্মকরা ওই বাড়িতে জোড় হয়। খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই তহিদুজ্জামান সহ একদল পুলিশ সেখানে ছুটে আসেন। এসআই তহিদুজ্জামান পলাশের মৃত দেহ পরীক্ষা করে হৃদ রোগে মারা গেছে মর্মে প্রাকাশ্যে মতামত ব্যক্ত করেন। এতে করে সেখানে উপস্থিত নৌকার সর্মথকরা উত্তেজিত হয়ে ধাওয়া করে তাকে। স্থানীয় টিকারি বাজারে শুরু হয় পুলিশ ও নৌকা সর্মথকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। এ সময় গুরুতর ভাবে আহত হন তিনি। পরস্থিতি সামাল দিতে জেলা শহর থেকে সদর থানার ওসি শেখ সোহেল রানা সহ অতিরিক্ত পুলিশ বেলা ১১ টার দিকে গোটা এলাকার নিয়ন্ত্রন নেয়। এর আগে নৌকার প্রার্থী মোঃ শহিদুল ইসলাম সিকদারের ভাই ইমদাদুল হক সিকদারের বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে। সতন্ত্র প্রার্থী আনারস মার্কার প্রার্থী মোঃ আবু সাঈদের বাড়িতেও নৌকার সর্মথকরা হামলা চালায় মর্মে অভিযোগ করা হয়েছে। সংঘর্ষ নিয়ে উভয় প্রার্থী পরস্পর বিরোধি অভিযোগ করেছেন। দুই প্রার্থী একই গোষ্ঠির এবং সম্পর্কে মামা ভাগ্নে। পাশাপাশি বাড়ি তাদের। অন্য দিকে মৃত মাহমুদুল হক পলাশের স্ত্রী শিউলি বলেন, তার স্বামীকে কেও হত্যা করেনি। হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে আজ সকাল ৭টার দিকে নিজ বাড়িতে মৃত্যু বরণ করেছেন তিনি। মৃতু মেম্বর প্রার্থীর ভাই শিমুল বলেছেন, বিষয়টি এখন ভিন্ন খাতে নেওয়ার চেষ্টা চলছে। তার ভাইকে কেও হত্যা করেনি বলে দাবিও করেন তিনি। এ বিষয়ে সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার বলেন, পরিবারের লোকজন পলাশের মৃত্যু নিয়ে কোন অভিযোগ করেনি। হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে স্ত্রীসহ পরিবারের লোকজন জানিয়েছে তাকে। পরিস্থিতি আরো জটিল হওয়ার আশংকায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।