ঢাকাশুক্রবার , ২৮ জানুয়ারি ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

পরকালে যাদের চেহারা কালো ও সাদা হবে

মানবতা ডেস্ক নিউজ
জানুয়ারি ২৮, ২০২২ ৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

পরকালের অনন্ত জীবনই মানুষের শেষ আশ্রয় স্থল। ইচ্ছা কিংবা অনিচ্ছায় সবাইকে পরকালে ফিরে যেতে হবে। এমব মানুষের মধ্যে কারো চেহারা হবে উজ্জ্বল ও সাদা; তারা সফল হিসেবে জান্নাতে যাবে। আর কিছু মানুষের চেহারা হবে কালো, তারা জান্নাত থেকে বঞ্চিত হয়ে জাহান্নামের আজাব ভোগ করবে। আল্লাহ তাআলা কোরআনুল কারিমে বিষয়গুলো সুষ্টষ্পভাবে তুলে ধরে মানুষকে দ্বীনে পথে এগিয়ে আসার এবং দ্বীনের ওপর অচল-অবিচল থাকার ব্যাপারে সতর্কতা ঘোষণা করেছেন।

মহান আল্লাহ বলেন-

یَّوۡمَ تَبۡیَضُّ وُجُوۡهٌ وَّ تَسۡوَدُّ وُجُوۡهٌ ۚ فَاَمَّا الَّذِیۡنَ اسۡوَدَّتۡ وُجُوۡهُهُمۡ ۟ اَکَفَرۡتُمۡ بَعۡدَ اِیۡمَانِکُمۡ فَذُوۡقُوا الۡعَذَابَ بِمَا کُنۡتُمۡ تَکۡفُرُوۡنَ

‘সেদিন (পরকালে) কতকগুলো মুখমন্ডল সাদা (উজ্জ্বল) হবে এবং কতকগুলো মুখমন্ডল কালো হবে। যাদের মুখমন্ডল কালো হবে (তাদেরকে বলা হবে), বিশ্বাসের পর কি তোমরা অবিশ্বাস করেছিলে? সুতরাং তোমরা অবিশ্বাস করার পরিণামে শাস্তির আস্বাদ গ্রহণ কর।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১০৬)

وَ اَمَّا الَّذِیۡنَ ابۡیَضَّتۡ وُجُوۡهُهُمۡ فَفِیۡ رَحۡمَۃِ اللّٰهِ ؕ هُمۡ فِیۡهَا خٰلِدُوۡنَ

‘আর যাদের মুখমন্ডল উজ্জ্বলবর্ণ হবে, তারা আল্লাহর করুণায় অবস্থান করবে। সেখানে তারা চিরস্থায়ী হবে।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১০৭)

تِلۡکَ اٰیٰتُ اللّٰهِ نَتۡلُوۡهَا عَلَیۡکَ بِالۡحَقِّ ؕ وَ مَا اللّٰهُ یُرِیۡدُ ظُلۡمًا لِّلۡعٰلَمِیۡنَ

‘এগুলো আল্লাহর আয়াত, তোমার কাছে সত্যসহ আবৃত্তি করছি। আল্লাহ বিশ্ব-জগতের প্রতি অবিচার করার ইচ্ছা রাখেন না।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১০৮)

وَ لِلّٰهِ مَا فِی السَّمٰوٰتِ وَ مَا فِی الۡاَرۡضِ ؕ وَ اِلَی اللّٰهِ تُرۡجَعُ الۡاُمُوۡرُ

‘আর আসমানে যা কিছু আছে এবং জমিনে যা কিছু আছে সব আল্লাহরই এবং আল্লাহর কাছেই সব কিছু ফিরে যাবে।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১০৯)

আয়াতগুলো নাজিল সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত যে বিষয়গুলো ওঠে এসেছে, তাহলো-

‘কেয়ামতের দিক কিছু মুখ শুভ্র (উজ্জ্বল) হবে এবং কিছু মুখ হবে কালো ও অন্ধকার। যাদের মুখ কালো হবে; তাদের বলা হবে- তোমরা বিশ্বাস স্থাপনের পর আবারও অবিশ্বাস করেছিলে। সুতরাং তোমরা এর শাস্তি ভোগ কর; যেহেতু তোমরা অবিশ্বাসী হয়েছিলে।

আর যাদের মুখ সাদা শুভ্র হবে, তারা আল্লাহর রহমতে (জান্নাতে) প্রবেশ করবে। সেখানে তারা চিরস্থায়ী হবে। এসবই মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে নিদর্শন। যা আল্লাহ তাআলা আয়াত নাজিল করে বর্ণনা করেছেন।

এমন কি মহান প্রভু সৃষ্টি জগতের কারো প্রতি অত্যাচার করার ইচ্ছা পোষণ করেন না। সুতরাং যার জন্য তিনি যে পুরস্কার ঘোষণা করেছেন; তা সম্পূর্ণ ন্যয়ভিত্তিক।

সুতরাং যা কিছু জমিনে আছে এবং আসমানে আছে সব কিছুই মহান আল্লাহর নিয়ন্ত্রণাধীন। সবশেষে মানুষ আল্লাহর দিকেই ফিরে যাবে।

এ কারণেই মহান আল্লাহ তার প্রতি সন্তুষ্ট ব্যক্তি তথা সাদা ও কালো মুখওয়ালা মানুষদের ব্যাপারে একাধিক আয়াতে ঘোষণা করেছেন-

১. وَ یَوۡمَ الۡقِیٰمَۃِ تَرَی الَّذِیۡنَ کَذَبُوۡا عَلَی اللّٰهِ وُجُوۡهُهُمۡ مُّسۡوَدَّۃٌ ؕ اَلَیۡسَ فِیۡ جَهَنَّمَ مَثۡوًی لِّلۡمُتَکَبِّرِیۡنَ

যারা আল্লাহর প্রতি মিথ্যা আরোপ করে, তুমি কিয়ামতের দিন তাদের মুখ কালো দেখবে। অহংকারীদের আবাসস্থল জাহান্নাম নয় কি? (সুরা যুমার : আয়াত ৬০)

২.   وُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ مُّسْفِرَةٌ – ضَاحِكَةٌ مُّسْتَبْشِرَةٌ – وَوُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ عَلَيْهَا غَبَرَةٌ  – تَرْهَقُهَا قَتَرَةٌ

‘অনেক মুখমন্ডল সেদিন হবে উজ্জ্বল, সহাস্য ও প্রফুল্ল। আর অনেক মুখমন্ডল সেদিন হবে ধুলি ধূসরিত। তাদেরকে কালিমা আচ্ছন্ন করে রাখবে।’ (সুরা আবাসা : সুরা ৩৮-৪১]

৩. وُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ نَّاضِرَةٌ – إِلَى رَبِّهَا نَاظِرَةٌ

‘সেদিন অনেক মুখমন্ডল উজ্জ্বল হবে। তারা তার পালনকর্তার দিকে তাকিয়ে থাকবে।’ (সুরা কিয়ামাহ : ২২-২৩)

তাহলে উজ্জ্বল মুখ ও কালো মুখ কারা?

হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেছেন, ‘আহলুস সুন্নাত সম্প্রদায়ের মুখমণ্ডল শুভ্র হবে এবং বিদাআতিদের মুখমন্ডল কালো হবে।

হজরত আতা রাহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেন, ‘মুহাজির ও আনসারদের চেহারা সাদা হবে আর বনু কুরায়জা ও বনু নুযায়রের মুখমণ্ডল কালো হবে।’ (কুরতুবি)

তিরমিজির এক বর্ণনায় হজরত আবু উমামা রাদিয়াল্লাহু আনহুর এক হাদিসে এসেছে, খারেজি সম্প্রদায়ের মুখ কালো হবে। আর তারা যাদের হত্যা করবে তাদের মুখ সাদা হবে।’

তাকে জিজ্ঞাসা করা হলো- আপনি কি এই হাদিস রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে শুনেছেন?

তিনি আঙুল গুণে গুণে উত্তর দিলেন, হাদিসটি যদি অন্তত্ব সাতবার তাঁর কাছ থেকে না শুনতাম, তবে বর্ণনাই করতাম না।’ (তিরমিজি)

সুতরাং মানুষের জন্য সতর্কতা হচ্ছে, আসমান-জমিনে যা কিছু আছে সবই মহান আল্লাহর জন্য। আর মানুষ চূড়ান্তভাবে আল্লাহর কাছেই ফিরে যাবে। সুতরাং আল্লাহর দেওয়া বিধান মেনে জীবন পরিচালনা করাই হবে মানুষের একমাত্র কাজ।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ভালো করার তাওফিক দান করুন। আর মন্দ কাজ থেকে বিরত থাকার তাওফিক দান করুন। উজ্জ্বল সাদা শুভ্র মুখের অধিকারী হওয়ার তাওফিক দান করুন। কালো মুখের ভয়াবহতা থেকে হেফাজত করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।