ঢাকারবিবার , ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি-কৃষক
  4. খেলার খবর
  5. চাকরী
  6. চিকিৎসা-করোনা
  7. জাতীয়
  8. দেশ-জুড়ে
  9. ধর্ম-কর্ম
  10. প্রযুক্তি খবর
  11. বিনোদন
  12. বিস্ময়কর
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

ভুয়া প্যাড ব্যবহার, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে চাকরি দেয়ার কথা বলে প্রায় ৬ লাখ টাকা আত্মসাৎ

সাভার (ঢাকা ) প্রতিনিধি
ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২২ ২:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য একটি প্রতারক চক্র রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে চাকরি দেয়ার লোভ দেখিয়ে অর্থ আত্মসাৎকারী চক্রের (৩) প্রতারক চক্রকে গ্রেপ্তার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।
কৌশল অবলম্বন করে জাতীয় সংসদের প্যাড ব্যবহার করে ভুয়া নিয়োগপত্র তৈরী করেছে প্রতারক চক্রের সদস্যরা । এমনকি ৩ ভুক্তভোগীর কাছ থেকে ইতমধ্যে প্রায় ৬ লাখ টাকা নিয়েছে বলে অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।
রবিবার গ্রেফতারকৃতদের ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(ইন্টেলিজেন্স) মোঃ জামাল শিকদার।

এর আগে শনিবার আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থান থেকে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হল, গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী থানার বিশ্বনাথপুর গ্রামের দাউদ মোল্লার ছেলে রাসেল মোল্লা(২৪), বরিশালের উজিরপুর থানার কুরুলিয়া গ্রামের মৃত পিটার বাড়ৈ এর ছেলে লিটন বাড়ৈ(৪৫), এবং লিটন বাড়ৈর ছেলে ইম্মানুয়েল প্রান্ত বাড়ৈ(২৭)।

পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী হেজবুল্লাহর প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন রাসেল মোল্লা। কিছুদিন পর চাকরি ছেড়ে নিজের জাতীয় সংসদে অফিস সহকারী পদে চাকরি হয়েছে বলে জানায় রাসেল। পরে অপর দুই সহযোগীর সাথে হেজবুল্লাহকে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে ডাটা এন্ট্রি অপারেটর পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে প্রতারণার ফাঁদ সাজায় সে। সে ফাঁদে পা দেয় হেজবুল্লাহ, মোঃ মাসুদ ও বিপ্লব হোসেন। ৩ জনের চাকরির জন্য ১৮ লাখ টাকা চায় প্রতারক চক্রটি। পরে বিভিন্ন সময়ে তাদের কাছ থেকে সর্বমোট ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় চক্রটি। পরে জাতীয় সংসদের প্যাড ও লোগো সম্বলিত ভুয়া নিয়োগপত্র প্রদান করে চক্রটি। এরপরে তাদের কথাবার্তায় সন্দেহ হলে আশুলিয়া থানায় অভিযোগ দেয় ভুক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে আসামীদের গ্রেফতার করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা পেয়েছে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(ইন্টেলিজেন্স) মোঃ জামাল শিকদার বলেন, তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রবিবার ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ চক্রের সাথে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া সংসদ ভবনের কর্মকর্তারাও ইতমধ্যে বিষয়টি অবগত হয়েছেন। বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।